April 1, 2020

রাস্তা ও ব্রীজ ভাঙ্গার কারণে কমলগঞ্জে এক যুগ ধরে জনদূর্ভোগে লোকজন

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার লংগুরপারের জিবতলী এলাকার লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত ব্রীজটি প্রায় এক যুগ ধরে জনসাধারণের কোন কাজে লাগছে না। ব্র্রীজটি সংস্কার না করায় প্রায় ১৫/২০টি গ্রামের নাগরিকরা ৮ কিলোমিটার ঘুরে যাতায়ত করতে হচ্ছে।
জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার ৮ মাধবপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে লংগুরপার সংলগ্নে জিবতলী খালের উপর প্রায় ১৪ বৎসর আগে নির্মিত ব্র্রীজটি আজ হতে প্রায় এক যুগ আগে ব্রীজের উইং ওয়াল ও এর পাশের মাটি বন্যায় ভেঙে গেলে আজ পর্যন্ত সংস্কার করা হয়নি। ফলে এ রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে আছে। এলাকাবাসীকে প্রায় ৮ কিলোমিটার দক্ষিণ পূর্ব দিকের আরেকটি রাস্তা হয়ে ১৫ থেকে ২০ টি গ্রামের লোকজন আসা যাওয়া করতে হচ্ছে। এতে তাদের দূর্ভোগের শেষ নেই। এলাকাগুলো কৃষি পণ্য উৎপাদনমুখী এলাকা হওয়াতে এলাকার লোকজন তাদের পণ্য হাট বাজারে পৌঁছাতে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা।
আলাপকালে স্থানীয় খোকন মিয়া, রাজিব মালাকারসহ একাধিক লোকজন অভিযোগ করে বলেন, যেখানে রাস্তার সামান্য জায়গা ভাঙ্গা এবং দৃশ্যমান ব্রীজে এর গোড়ায় মাটি ভরাট করা হলেই আমরা বহুদূর ঘুরে আমাদের এলাকায় পৌঁছানো লাগতো না। তারা আরো জানান বিষয়টি লিখিতভাবে কয়েকবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানালেও কোন সুফল পাচ্ছিনা। এলাকাবাসী আরও জানান, উক্ত জিবতলী খাল হতে লিজের মাধ্যমে বালু উত্তোলন করে এ উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় বালু বিক্রয় করা হয় কিন্তু ব্রীজ এবং রাস্তাটি ভাঙ্গা থাকার কারণে এ পথে যোগাযোগ বন্ধ থাকার কারণে উক্ত খালটি লিজ নিতে আগ্রহ হারাচ্ছে উক্ত এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা। রাস্তাটি ও ব্রীজ মেরামতের দ্রুত উদ্যোগ নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।
মাধবপুর ইউনিয়নের স্থানীয় ইউপি সদস্য মোতাহির আলী বলেন, কয়েকবার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি। কিন্তুু কাজ হয়নি।
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) এর কমলগঞ্জ উপজেলার উপ-সহকারী প্রকৌশলী মামুন আহম্মদ বলেন, সরেজমিন তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সর্বশেষ সংবাদ