October 22, 2019

কমলগঞ্জে ২০ ঘন্টা পর স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার করল ডুবুরি দল

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ধলাই নদীতে ডুবে যাওয়া স্কুল ছাত্রের লাশ অবশেষে ২০ ঘন্টা পর উদ্ধার করল সিলেট ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। ১৪ সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় লাশটি উদ্ধার করা হয়। শুক্রবার দুপুর ২টায় হাত থেকে পড়ে যাওয়া দা তুলতে গিয়ে দলই চা বাগান সংলগ্ন ধলাই নদীর পানিতে ডুবে গিয়েছিল চা শ্রমিক সন্তান এসএসসি পরীক্ষার্থী লক্ষী নারায়ণ রাজভর (১৬)। সে ইসলামপুর ইউনিয়নের ভান্ডারীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০২০ সনের এসএসসি পরীক্ষার্থী। তার বাড়ি শমশেরনগর চা-বাগানের বড় লাইন শ্রমিক বস্তিতে।
সিলেট ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের ফয়েজ উদ্দীন ও রংপুর পিএন ৯৬০২ সংযুক্ত সিলেট ফায়ার স্টেশনের আবুল কালাম আজাদ, সহযোগী ডুবুরি আশিক মিয়া ও আব্দুল মোক্তাদির শনিবার সকাল সোয়া ৮টা থেকে অভিযান শুরু করে ২৫ মিনিটের মধ্যে ছাত্র লক্ষী নারায়ণের লাশ উদ্ধার করেন। এ উদ্ধার কাজে সার্বিক সহায়তা করেন কমলগঞ্জ উপজেলা ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা। উদ্ধারকালে উপস্থিত ছিলেন মাধবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পুষ্প কুমার কানু, বিজিবি বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী হামিদুর রহমান সীমান্ত ফাঁড়ির তফিজুল আহমদ ও কমলগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক ফয়েজ আহমদের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা। লাশ উদ্ধারের পর উপ-পরিদর্শক ফয়েজ আহমদের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল লাশের সুরতহাল তৈরী করেন।
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার দুপুরে দুই ভাই মিলে ধলাই নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধ এলাকা থেকে কলমি ঘাস কাটছিল। শুক্রবার বেলা দেড়টার দিকে আকস্মিকভাবে লক্ষী নারায়ণের হাত থেকে দা পড়ে যায় ধলাই নদীর পানিতে। তখন সে নদী থেকে দাটি খোঁজে নামতে গিয়ে পানির নিচে ডুবে যায়।
কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আরিফুর রহমান বলেন, নদীতে ডুবে যাওয়া ছাত্রকে ২০ ঘন্টা পর শনিবার সকালে ডুবুরিদের মাধ্যমে উদ্ধার করা হয়। এ বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ