April 1, 2020

কুলাউড়ায় প্রেমিকের খপ্পর থেকে পালিয়ে এসে মামলা করলো কিশোরী

বিশেষ প্রতিনিধি : কুলাউড়ার রাউৎগাঁও ইউনিয়নের ১৭ বছরের এক কিশোরী প্রতারক প্রেমিকের খপ্পর থেকে একমাস পর পালিয়ে এসেছে। এই একমাস কিশোরীকে আটকে রেখে প্রেমিক রুহিন মিয়া (২৫) বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে। এ ব্যাপারে ওই কিশোরী বুধবার রাতে কুলাউড়া থানায় অপহরণ করে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ প্রেমিক রুহিন মিয়াকে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে। প্রতারক প্রেমিক রুহিন মিয়া উপজেলার রাউৎগাঁও ইউনিয়নের কৌলা গ্রামের সাদ মিয়ার পুত্র।
কিশোরির দায়েরকৃত অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ১৮ জুলাই সকালে থালা বাসন মাজার কাজে বাড়ির পুকুরে গেলে রুহিন মিয়া কিশোরীকে ফুসলিয়ে অজানা গন্তব্যে নিয়ে যায়। পরে তিনি জানতে পারেন তাকে পাশর্^বর্তী রাজনগর উপজেলার কদমহাটা নামক স্থানের একটি বাড়িতে রাখা হয়েছে।
এ দিকে প্রতিদিন রুহিন মিয়া ওই কিশোরিকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করতো। কিন্তু বিয়ের কথা বলায় রুহিন এড়িয়ে চলে। এভাবে প্রায় একমাস কেটে যাওয়ার পর ২১ আগস্ট দিনের বেলায় রুহিন কদমহাটা বাজারে গেলে সুযোগ বুঝে ওই বাড়ি থেকে পালিয়ে আসেন কিশোরি। পরে বাবাকে সাথে নিয়ে কুলাউড়া থানায় এসে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযুক্ত রুহিন মিয়াকে আটক করতে সক্ষম হয়।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই হারুনুর আল রশীদ শুক্রবার বিকেলে জানান, অভিযুক্ত রুহিন মিয়াকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। কিশোরিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ