September 19, 2019

কুলাউড়া মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন স্বামী, স্ত্রী-কন্যা আহত

বিশেষ প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন বেসরকারি ঔষুধ কোম্পানীর কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন রানা নামের এক ব্যক্তি। এসময় তাঁর সাথে থাকা স্ত্রী ও একমাত্র কন্যা সন্তান গুরুতর আহত হয়েছেন। ২০ আগস্ট মঙ্গলবার রাত ১০ টার দিকে নবীন চন্দ্র সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সম্মুখে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত নাসির উদ্দিন রানা (৪০) হলেন বেসরকারি ওষুধ কোম্পানী ইউরো ফার্মার কুলাউড়ার এরিয়া ম্যানেজার। তাঁর স্ত্রী রেহানা বেগম (৩০) ও শিশু কন্যা ঐতী (৫)। তাদের বাড়ি হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায়।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে নাসির উদ্দিন রানা তাঁর স্ত্রী ও কন্যাকে নিয়ে সিএনজি অটোরিকশাযোগে (মৌলভীবাজার থ ১১-৭৫০৬) মৌলভীবাজার থেকে কুলাউড়ায় আসছিলেন। এসময় তাদের বহনকারী অটোরিকশা নবীন চন্দ্র মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের চৌমুহনী মোড়ে অন্ধকারে দাঁড়িয়ে থাকা বিপরীত মুখী একটি ট্রাকের (ঢাকা মেট্রো- ট ১৮-৫৪৮৩) সাথে সজোড়ে ধাক্কা লাগলে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। এতে দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া অটোরিকশায় থাকা রানার মাথায় প্রচন্ড আঘাত লাগে এবং স্ত্রী-কন্যা গুরুতর আহত হন। এসময় রানা তার কন্যাকে বাঁচাতে অটোরিকশা থেকে বাইরে ছুড়ে ফেঁলে দিলে মেয়েটি বেঁচে যায়। কিন্তুু তিনি ও তাঁর স্ত্রী গুরুতর আহত হলে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে রাত সাড়ে ১২টার দিকে নাসির উদ্দিন রানা মারা যান। তাঁর স্ত্রী হাসপাতালের আইসিইউতে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছেন। মেয়ে বর্তমানে আশঙ্কামুক্ত থাকলেও পিতাকে হারিয়ে সে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছে।
এদিকে সোমবার World of Science পেইজ থেকে যে ছবিটি শেয়ার করেছিলেন তিনি সেখানে এমন কিছু ছবি দেখা যাচ্ছে যেগুলো আপাত দৃষ্টিতে দুর্ঘটনার ছবি মনে হলেও দুর্ঘটনার নয়। কিন্তু তখনও কি তিনি জানতে পারতেন পরের দিন তার জন্য কি ভয়াবহ দুর্ঘটনা অপেক্ষা করছে।
খবর পেয়ে কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ বেলায়েত হোসেনসহ একটি দল আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন।
কুলাউড়া হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. জাকির হোসেন বলেন, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইয়ারদৌস হাসান বলেন, থানায় এ ব্যাপারে এখনো কোন মামলা হয়নি। তবে ঘাতক ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশাটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ