September 19, 2019

কুলাউড়ায় দুই কিশোরীর আত্মহত্যা

কুলাউড়া প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় একই দিনে শারমিন আক্তার (১৭) ও মনি বেগম (১৭) নামে দুই কিশোরী আত্মহত্যা করেছে। একজন বিষপান করলেও আরেকজন গলায় ওড়না পেছিয়ে আত্মহত্যা করেন।
উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের দেওগাঁও গ্রামের মৃত সোবহান মিয়ার মেয়ে মনি বেগম ১৯ আগস্ট সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে নিজ ঘরে সে বিষপান করে। চেঁচামেচি শুনে মনির মা দৌড়ে এসে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে পরে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
কুলাউড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, দুপুরে মনির মা ধান দিতে বাড়ির ওঠানে যান। এসময় ঘরে ঢুকে দেখতে পান তার মেয়ে ঘরের মেঝেতে লুটিয়ে পড়ে আছে। এসময় পাশে বিষের বোতল দেখে বুঝতে পারেন মেয়ে বিষ পান করেছে। দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে এলে প্রথমে কুলাউড়া হাসপাতাল পরে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মনির মৃত্যু রহস্যজনক উল্লেখ করে তিনি বলেন, ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
একই দিন সকাল ৯টায় শারমিন আক্তার (১৭) নামে এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সে উপজেলার উপজেলার হাজিপুর ইউনিয়নের কালিয়াটিলা গ্রামের লাল মিয়ার মেয়ে ও শমসেরনগর সুজা মেমোরিয়াল কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। তবে আত্মহত্যা করার আগে সে একটি চিরকুট লিখে গলায় উড়না পেঁচিয়ে সে আত্মহত্যা করে।

সর্বশেষ সংবাদ