December 11, 2019

রূপচাঁদা সুপার সেফ চ্যাম্পিয়ান জকিগঞ্জের কোহেল তাপাদার

বিশেষ প্রতিনিধি : রূপচাঁদা সুপার শেফ ২০১৯” এর চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন সিলেটের মোঃ কোহেল তাপাদার। মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) রাত সাড়ে ৯ টায় চ্যানেল আইয়ে প্রচারিত হয় রূপচাঁদা সুপার শেফ এবারের আসরের গ্র্যান্ড ফাইনাল। চ্যাম্পিয়ন মোঃ কোহেল তাপাদার পুরস্কার হিসেবে পেয়েছেন ক্রেস্ট ও ৫ লক্ষ টাকা। প্রতিযোগিতায় ২য় ও ৩য় হয়েছেন যথাক্রমে মুন্সিগঞ্জের কানিজ ফাতেমা সোহাগী এবং সিলেটের বাঘবাড়ির মেয়ে রোহেনা সুলতানা। ফাইনালে বিচারক ছিলেন, উপমহাদেশের সেলিব্রিটি শেফ রঙ্গন নিয়োগী, অভিনেতা তারিক আনাম খান এবং শেফ প্রশিক্ষক নাফিজা ইসলাম। আত্মবিশ্বাস, প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ মনোভাব ও রান্নার দক্ষতাকে পুঁজি করে “রূপচাঁদা সুপার শেফ ২০১৯” এর শীর্ষ তিনে অবস্থান করে নিয়েছিলেন কানিজ ফাতেমা সোহাগী, মোঃ কোহেল তাপাদার ও রোহেনা সুলতানা। রূপচাঁদা সুপার শেফ ২০১৯” এর চ্যাম্পিয়ন মোঃ কোহেল তাপাদার জকিগঞ্জ উপজেলার কসকনক পুর গ্রামের মৃত ফখরুল হাসানের পুত্র। চ্যাম্পিয়ন কোহেল তাপাদার জানান, রুপঁচাদা সুপার শেফ এমন একটি প্লাটফর্ম যেখানে বাংলাদেশের নানা প্রান্তের হাজারও রন্ধন শিল্পীর অংশ নিয়েছিলেন। যেখানে সব বাধা অতিক্রম করে আজ আমি এই প্রতিযোগিতার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট লাভ করেছি। এটা শুধু আমার বিজয় নয় এটা সিলেটের মানুষের জন্যেও বিজয়। আমার মায়ের দোয়া ছিলো বলেই এমন একটি প্লাটফর্মে এসে নিজের যোগ্যতাকে প্রমাণ করতে পেরেছি। যার কারণে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। সর্বোপরি আমার সাফল্য অর্জনের পিছনে রয়েছে সকলের দোয়া ভালোবাসা এবং সম্মানিত বিচারকগনের বিচক্ষণতা ও দূরদর্শী সিদ্ধান্ত যার ফলে আজকে আমার এই সাফল্য। রুপঁচাদা সুপার শেফের মতো একটি রিয়েলিটি শো ভবিষ্যতে আরো অনেক সফল সুপার শেফ তৈরি করবে এটা আমার বিশ্বাস। এব্যাপারে জকিগঞ্জ উপজেলার ৮নং কসঁকনকপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক রিয়াজ বলেন. সব বাধা অতিক্রম করে, কোহেল এই মুকুট অর্জন করে জকিগঞ্জের মুখ উজ্জল করেছে। আমি তার এই মর্যাদায় সাফল্য কামনা করি।

সর্বশেষ সংবাদ