July 15, 2019

কুলাউড়ায় পণ্যের মেয়াদ বাড়ানোর অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা

কুলাউড়া প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় ফ্রেশের মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্যে মেয়াদ বাড়িয়ে বাজারজাত করনের অভিযোগে ফ্রেশ পণ্যের ডিলারকে পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
কুলাউড়া পৌরশহরের উত্তরবাজারে ফ্রেশ পণ্যের ডিলার সাইফুদ্দিন এন্ড ব্রাদার্স নামে প্রতিষ্ঠানে বৃহস্পতিবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ সাদি-উর রহিম জাদিদের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মেয়াদোত্তীর্ণ ফ্রেশের পণ্যের মেয়াদ বাড়ানোর অভিযোগে ডিলার ও সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
অভিযোগ রয়েছে, অধিক মুনাফার লোভে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য নতুন করে মেয়াদ বাড়িয়ে বাজারজাত করে আসছিলো ফ্রেশ পণ্যের ডিলার সাইফুউদ্দিন এন্ড ব্রাদার্স ও কোম্পানির মার্কেটিং দায়িত্বে থাকা এস আর (সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ) শরিফ উদ্দিন। বৃহস্পতিবার সকালে পৌর শহরের উত্তরবাজারস্থ তাদের প্রতিষ্ঠানের গুদামে এস আর শরিফ উদ্দিন আটা, ময়দাসহ ফ্রেশের একাধিক মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্যের তারিখ অবৈধভাবে তুলে নতুন মেয়াদ বসানোর কাজ করছিলেন।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) মোঃ সাদি-উর রহিম জাদিদ কুলাউড়া থানা পুলিশকে সাথে নিয়ে বিকেল ৩টা দিকে সাইকুউদ্দিন এন্ড ব্রাদার্সে উপস্থিত হয়ে প্রায় ৬মণ আটা ও ময়দা জব্দ করে নষ্ট করে ফেলেন। মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্যে নতুন তারিখ বসানোর ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানের মালিকের কাছে জানতে চাইলে সাইফুউদ্দিন এর দায় এড়িয়ে যান এবং বলেন এ ব্যাপারে তিনি কিছু জানেনা। শুধুমাত্র মার্কেটিংয়ের দায়িত্বে যে আছেন সেই জানে। পরে মার্কেটিংয়ের দায়িত্বরত এস আর শরীফ উদ্দিনকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্যে নতুন তারিখ বসানোর কথা স্বীকার করেছেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ ধারায় ফ্রেশ পণ্যের ডিলার সাইফুদ্দিন ও এস আর শরীফ উদ্দিনকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় আরো উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া থানার ওসি মোঃ ইয়ারদৌস হাসানসহ পুলিশ সদস্যরা।

এ ব্যাপারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ সাদি-উর রহিম জাদিদ বলেন, গোপন সংবাদে খবর পেয়ে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। আগামী রোববার ফ্রেশ পণ্যের মার্কেটিংয়ের দায়িত্বে থাকা ম্যানেজারদের হাজির হয়ে এমন পণ্য বাজারজাতে এমন প্রতারণা করা হবেনা মর্মে অঙ্গীকারনামা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছি। নির্দেশ অমান্য করলে আগামী উপজেলা পরিষদের আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় সিদ্বান্ত নিয়ে ফ্রেশ পণ্য বাজারজাত বন্ধ ও বর্জনের জন্য স্থানীয় ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতিকে জানানো হবে। এ রকম জালিয়াতি বন্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সর্বশেষ সংবাদ