May 20, 2019

সাংবাদিক চম্পুর ওপর হামলার প্রতিবাদে কুলাউড়ায় মানববন্ধন

কুলাউড়া প্রতিনিধি : প্রথম আলোর মৌলভীবাজারের জুড়ী প্রতিনিধি কল্যাণ প্রসূণের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে কুলাউড়ায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা হয়েছে। ২৪ এপ্রিল বুধবার বেলা ১২ টার দিকে পৌর শহরের চৌমুহণী এলাকায় এই কর্মসূচির আয়োজন করে প্রথম আলো বন্ধুসভা। প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন কুলাউড়া ইউনিটের সভাপতি মোক্তাদির হোসেন।
বন্ধুসভার কুলাউড়া শাখার সভাপতি নাজমুল বারী সোহেলের সঞ্চালনয় সভায় একাত্মতা প্রকাশ করে বক্তব্য দেন মৌলভীবাজার জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাবেক সভাপতি খন্দকার লুৎফুর রহমান, কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি বদরুজ্জামান সজল, সাধারণ সম্পাদক মইনুল ইসলাম শামীম, যুগান্তর প্রতিনিধি আজিজুল ইসলাম, বিএনপি নেতা আব্দুল গাফফার চৌধুরী, কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান আখই, উদীচি কুলাউড়া শাখার সাধারণ সম্পাদক নির্মাল্য মিত্র সুমন, সাংবাদিক ও সংগঠক শহিদুল ইসলাম তনয়, দি বাংলাদেশ টুডে প্রতিনিধি শাকির আহমদ, সংগঠক ও ছাত্রনেতা আতিকুল ইসলাম, ইউসুফ আহমদ ইমন প্রমুখ। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কুলাউড়া সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ সৌম্য প্রদীপ ভট্টাচার্য্য, সাংবাদিক সঞ্জয় দেবনাথ, পৌর কাউন্সিলর মঞ্জুরুল আলম খোকন, কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি অরবিন্দু ঘোষ বিন্দু, সাংবাদিক এস আলম সুমন, মুক্তিযোদ্ধা রঞ্জিত, মুক্তিযোদ্ধা নজির খান প্রমুখ। বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিক মানিক সাহা, সাগর-রুনি’র হত্যার বিচার হয়নি বলেই সন্ত্রাসীরা আজ বেপরোয়া। তাদের অন্ধকার থাবায় আজ ক্ষত-বিক্ষত সাংবাদিক সমাজ। সত্যের পথে কলম ধরলেই তারা ঝাঁপিয়ে পড়ে সাংবাদিকদের উপর। এভাবেই বছরের পর বছর সাংবাদিকদের উপর চলছে অত্যাচার-নীপিড়ন। আর এসব সন্ত্রাসী হামলায় আহত-নিহত সাংবাদিকরা তাঁদের ন্যায্য বিচার পায়না। বিচারের দাবীতে রাস্তায় নামতে হয়। লজ্জার বিষয়, তবুও বিচার হয়না।
বক্তারা আরও বলেন, মুক্ত কলমের লাগাম ধরতে দুষ্কৃতিকারীরা সদা তৎপর। সাংবাদিকরা জেনে শুনে এই চ্যালেঞ্জ নিতে সদা প্রস্তুত। তবে, প্রশাসন যদি সন্ত্রাসীদের প্রশ্রয় দেয়, তাদের আটক না করে তবে তারা হয় বেপরোয়া। রাষ্ট্রের চারটি স্তম্ভের একটি হলো গণমাধ্যম। তাই এর নিরাপত্তার দায়িত্ব সরকার ও প্রশাসনের। আমরা দাবী করছি সাংবাদিক চম্পুর উপর হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করা হোক।
প্রসঙ্গত, গত শনিবার রাতে জুড়ি উপজেলা সদরের শিশুপার্ক সংলগ্ণ সড়ক সেতুর ওপর কল্যাণ প্রসূণের ওপর হামলা করে মুখোশধারী কয়েকজন দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় জুড়ি থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।
জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জুড়ীতে কল্যাণ প্রসূনের ওপর সন্ত্রাসী হামলা : প্রতিবাদে মানববন্ধন

সর্বশেষ সংবাদ