March 19, 2019

নারী দিবসে প্রিয় সেলিনা আপার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা

মাহফুজ শাকিল এর ফেসবুক থেকে : আজ ৮ই মার্চ, বিশ্ব নারী দিবস। পৃথিবীর সকল নারীর জন্য অত্যন্ত আনন্দের দিন, অত্যন্ত সম্মানের দিন, অহংকার ও গর্ব করার দিন, নারীদের সাফল্যগাঁথা স্বীকৃতি পাওয়ার দিন। নারী মাত্রই মায়া মমতাপূর্ণ একজন মানুষ। কারণ একজন নারী পৃথিবীর সবচেয়ে আপন মা-বোনের ভূমিকাতেও থাকেন। আসলেই কথাটি সত্যি। নারীর সৌন্দর্য লুকিয়ে আছে তার মায়া মমতায়, তার অন্যের দুঃখে দুঃখী হওয়ার মানসিকতায়, তার সহানুভূতি এবং সহমর্মিতা ও ভালোবাসায়। আমার জীবনে তেমনি এমন একজন মহৎপ্রাণ মানুষের সাথে পরিচয় হয়েছে। যার প্রতিভা ও গুণের কোন শেষ নেই। একটা কথা আছে, রক্তের সম্পর্কের চেয়ে ধর্মের সম্পর্ক অনেক বড়। সেটার উৎকৃষ্ট উদাহরণ হলেন আমার এক প্রিয়দর্শিনী শ্রদ্ধেয় আপা। অসাধারণ সব প্রতিভার অধিকারীনি তিনি। খুব সহজেই কাউকে আপন করে নিতে পারেন। তিনি হলেন সেলিনা চৌধুরী বিউটি। তিনি কুলাউড়ার মেয়ে। আজকের এই নারী দিবসে আমার পরম শ্রদ্ধেয় সেলিনা চৌধুরী আপাকে জানাচ্ছি হৃদয়খানি থেকে অজস্র ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা। তিনি একজন নারী হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন আপন মহিমায় ও স্বগৌরবে।

তিনি দীর্ঘদিন দৈনিক খবর গ্রুপসহ বিভিন্ন পত্রিকায় সুনিপুণভাবে কাজ করেছেন। একুশে টেলিভিশনসহ ইলেকট্রনিক্স এবং প্রিন্টিং মিডিয়া দুটোতেই তিনি কাজ করেছেন। পাশাপাশি দেশের শীর্ষস্থানীয় পত্র-পত্রিকা ও সাময়িকীতে নিয়মিত কলাম ও গল্প লিখেন। প্রাচ্যর অক্সফোর্ড নামে খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনষ্টিটিউট থেকে কৃতিত্বের সহিত মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেছেন। বর্তমানে ঢাকায় প্রতিষ্ঠা করেছেন লাইলাক কমিউনিকেশন্স নামে একটি প্রতিষ্ঠান। যেটির চেয়ারপার্সনের দায়িত্বে রয়েছেন এবং ই কমার্স, ফ্যাশন ডিজাইনিং সফটওয়্যার ডেভোলপমেন্ট, জেন্ডার ডেভোলপমেন্ট, গবেষণা উন্নয়ন প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশনে নিয়মিত দক্ষতার সাথে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এছাড়া তিনি সিলেট মেডিকেল ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ও সিলেট ম্যাটসের প্রধান উপদেষ্ঠার দায়িত্বে রয়েছেন। বহুমুখী প্রতিভার ধারক ও বাহক এই নারী লেখালেখিসহ বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজে তাঁর বিশাল আগ্রহকে তিনি কাজে নিখুঁতভাবে লাগাচ্ছেন। ছোটবেলা থেকে অত্যন্ত মেধাবী ও দৃঢ় প্রত্যয়ী এই নারী। সুশিক্ষিত, সভ্য এবং শুভ চিন্তাময়ী এই প্রিয়দর্শিনী মানুষকে নিয়ে অনেক গর্ববোধ করি। তিনি খুব অদ্ভুত একজন মানুষ।

আমার সম্পাদিত সাহিত্য ম্যাগাজিন সূচনায় আপার একটি সাক্ষাৎকারে প্রশ্ন করেছিলাম, আপনার প্রতিভা ও গুণের কারণে যেমন অনেক ভক্ত রয়েছে তেমনি সুন্দরী রমণী হিসেবেও আপনার অনুরাগীর সংখ্যা কম নয়। এটাকে আপনি কিভাবে মূল্যায়ন করেন? তখন আপা প্রশ্নের উত্তরে বলেছিলেন, মাহফুজ আমার সৌন্দর্যের মূল্য আমার কাছে নেই। আমার ব্যক্তিত্ব এবং কাজই আমার কাছে প্রধান বিষয়। যারা আমার প্রশংসা করে তারা পুরুষ হিসেবে প্রশংসা করেনা। মানুষ হিসেবে করে। এখানে নারী-পুরুষ দুজনই মানুষ হিসেবে মূল্যবান। সৎ, সুশীল এবং বিবেকবান মানুষ, সে নারী হোক, পুরুষ, হোক আমার কাছে সমান মর্যাদা পায়। আরেকটি প্রশ্ন করেছিলাম, আপনার স্বভাবগত মূল্যায়ন একটু যদি ব্যাখা করেন? তখন আপা উত্তরে বলেছিলেন, মাহফুজ আমি একটু ইন্ট্রোভাট টাইপ মানুষ। আমার উচ্ছাস কম, পাহাড়ের গাম্ভীর্য্য আর সমুদ্রের গভীরতা দুই-ই আমার ভালো লাগে। বর্ষার ঘন মেঘ যেমন প্রিয় তেমনি শরতের নীলাকাশ ও ভালো লাগে। আমি বাস্তবযুক্তি আশ্রয়ী মানুষ। বিবেকহীন এবং অনূভূতিহীন মানুষদের আমি খুব অপছন্দ করি। ভালো আর মন্দত্বের সঠিক বিচারই আমার কাছে বড়। যা মানুষ কে ছোট করে এমন কিছুকে মনে স্থান দেইনা। আমি মনে করি, খেয়ালীপনা, দাম্ভিকতা, অসহিষ্ণুতা মানুষের চরিত্রের বিরাট ক্ষতিকর দিক। একটা সুন্দরমুখী অর্থবহ জীবনের জন্য আত্মবিশ্বাস এবং ডেডিকেশন বড় ব্যাপার। বস্তুুতঃ দায়িত্বশীল হওয়া, মনকে আমি বহুরকমের জটিলতার উর্দ্ধে রাখতে শিখেছি। সুশীল-শান্ত পরিবেশ আমার অত্যন্ত পছন্দ। কান্ডজ্ঞানহীন নীতি বিবর্জিত সবকিছুর উর্দ্ধে থাকতে শিখেছি। নিজের যে কোন দোষ ভূল আমি স্বীকার করি এবং শোধরানোর চেষ্টা করি। মনের প্রসারতাই সূ-চিন্তা এবং সুকর্মের পরিচয় দেয় এ নিরিখেই আমি পথ চলি।

আরেকটি স্পেশাল প্রশ্ন করেছিলাম, আপনার দৃষ্টিতে ভবিষ্যত সমাজকে কিভাবে দেখতে চান ? তখন সেলিনা আপা উত্তরে বলেছিলেন, যা কিছু ভালো, যা কিছু শুভ, যা বৃহত্তর মানব কল্যাণকর। এমন শান্তি ও স্থিতিশীল একটা সমৃদ্ধ সুন্দর সমাজ দেখতে চাই।
আসলে সত্যিকার অর্থে পৃথিবীর একটা মধুর দিক হচ্ছে মানুষের ব্যবহার। আপা আমাকে নিজের আপন ছোট ভাইয়ের মত অনেক স্নেহ করেন। আমিও আপাকে বড়বোনের মত শ্রদ্ধার আসনে বসিয়েছি। ভাই-বোনের সম্পর্ক আমাদের খুবই হৃদিক। প্রতিটি মুহুর্তে আপা আমার খোঁজখবর নেন। প্রিয় আপার চমৎকার সব বিনয়ীভাব দেখে শ্রদ্ধায় আমার প্রাণ জুড়ে যায়। কি পরিমাণ সিনসিয়ার, আর দায়িত্বশীল একজন মানুষ তিনি। পরিশেষে প্রিয় সেলিনা আপা সহ পৃথিবীর সকল নারীদের প্রতি রইলো অপার ভালোবাসা ও শুভকামনা।

সর্বশেষ সংবাদ