April 23, 2019

হাকালুকিতে হলুদের নন্দনকানন!

মাহফুজ শাকিল : ঋতুবদলের পালাক্রমে প্রতিবছরই ঘুরে আসে শীতকাল। আর এই শীতকালে আমাদের যে দৃশ্যটা সবচেয়ে বেশি আন্দোলিত-আলোড়িত করে তা হল অবারিত হলুদে ভরা সরিষা ক্ষেত। দিগন্ত বিস্তৃত হলুদের আভা। গ্রাম-বাংলার চারপাশ এখন সরিষা ক্ষেতে পরিপূর্ণ। সূর্য ওঠার সঙ্গে সঙ্গে মুক্তার মতো ঝিকমিকে শিশির কণা গড়িয়ে নামে। সকালের রোদে ঝলমল করতে থাকে মাঠভর্তি হলুদ সরিষা ফুল।  যতদূর চোখ যায় কেবল হলুদ আর হলুদ। যেন সবুজ মাঠজুড়ে আগুন লেগেছে! ধীরে ধীরে বেলা গড়িয়ে নামে বিকেল। বিকেলের ‘কন্যাসুন্দর’ আলোয় হলুদ ফুলগুলোর রূপ যেন আরেকটু খুলে। মিষ্টি বাতাসে দোলে দোলে ওঠে ফুলের ডগা। প্রকৃতির নির্মল বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে সরিষা ফুলের মাতাল করা ঘ্রাণ। এক ফুল থেকে আরেক ফুলে মৌমাছিদের মধু আহরণ করা দেখলে মন ভাল না হয়ে উপায় নেই। সরিষা ফুলের হলদে সৌন্দর্য আপনাকে মুগ্ধ করবেই। হলুদ ফুলের নন্দনকানন দেখতে চাইলে আসতে পারেন এশিয়ার বৃহত্তম হাকালুকি হাওরে।  কুলাউড়া উপজেলার ভূকশিমইল ইউনিয়নের চালিয়া অংশে স্থানীয় কয়েকজন কৃষক সম্মিলিতভাবে এই সরিষার চাষাবাদ করে তাদের জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। এখন পুরো মাঠ ফুলে ফুলে সুশোভিত। দূর থেকে তাকালে মনে হয় যেন দিগন্ত জোড়া হলুদের গালিচা। যে দৃশ্যটি যেকোন পথচারী বা পর্যটকের মনকে আকৃষ্ট করবেই।

সর্বশেষ সংবাদ