November 21, 2019

কেউ কথা রাখেনি

: আব্দুল করিম কিম :

আট চল্লিশ বছর কাটলো, কেউ কথা রাখেনি

বঙ্গবন্ধু স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের পর

রেসকোর্স ময়দানের জনসভায় বলেছিলেন

“এই বাংলাদেশে হবে সমাজতন্ত্র ব্যবস্থা, এই বাংলাদেশে

হবে গণতন্ত্র, এই বাংলাদেশ হবে ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র”

কত চন্দ্রভূক অমাবস্যা চলে গেলো

বঙ্গবন্ধু কথা রাখতে পারলেন না

শুক্লা দ্বাদশির দিন তাঁকে হত্যা করা হলো ।

 

ব্যারাক থেকে বেড়িয়ে এসে জিয়াউর রহমান

বলেছিলেন, খাল কাটতে থাকো দাদা ঠাকুর

তোমাকে আমি শষ্য শ্যামলা বাংলাদেশ দেখাবো

সেখানে গোলা ভরা ধান আর

গোয়াল ভরা গরু থাকবে ।

জিয়াউর রহমান কিছুই দেখাতে পারেননি ।

খাল কেটে শুধু কুমির ডেকেছেন

একাত্তরের পালিয়ে যাওয়া কুমিরের দল

খাল থেকে নদী হয়ে বানে ভেসে পুকুর ছুঁয়েছে ।

হো মো এরশাদ রাতের আঁধারে ক্ষমতায় এসে

কথা দিতে চেয়েছিল । বেঈমানের কথা কেউ শুনেনি ।

কথা শোনার অপেক্ষায় সবাই রাজপথ দেখছিল…

গণতন্ত্রের স্বপ্ন দেখাতে প্রবাস থেকে শেখ হাসিনা

স্বদেশ ফিরে, রাজপথে এসেছিলেন

ভাঙ্গা ব্রিফকেস দেখিয়ে এসেছিলেন খালেদা জিয়াও

‘স্বৈরাচার নিপাত গেলে গণতন্ত্র মুক্তি পাবে’

বলেছিলেন দুজনে ।

বুকের তাজা রক্ত ঢেলে স্বৈরাচার বিদায় দিলেও

গণতন্ত্র আর মুক্তি পেলো কই ?

আটাশ বছর কেটেছে । গণতন্ত্রের আর মুক্তি মেলেনি ।

ভাঙ্গা সুটকেস থেকে কোকো-১, ২ বেড়িয়েছে ।

গণতন্ত্রের বদলে শেখ হাসিনা ৫৭ ধারা দেখিয়েছেন ।

একটা সেবাও পাইনি কখনো এদেশে ।

সরকারী সেবা কিনতে যেয়ে ঘুষ দিয়েছি ।

যারা চুরি করেছে, ব্যাংক লুটেছে

লাঠি-লজেন্স দেখিয়ে দেখিয়ে চুষেছে তাদের ছেলেরা

ভিখারীর মতন থানার গেটে দাঁড়িয়ে দেখেছি

ভিতরে ডাকাতদের-উৎসব ।

অবিরল রঙের ধারার মধ্যে সংসদ ভবনে

সুবর্ণ কঙ্কণ পরা ফর্সা রমণীরাও

কত রকম আমোদে এমপি হয়েছে সেখানে ।

আমাদের দিকে তারা ফিরেও চায়নি!

 

বাবা আমার কাঁধ ছুঁয়ে বলেছিলেন,

দেখিস, একদিন, আমরাও…

বাবা এখন হাসপাতালের মেঝেতে,

ওয়ার্ডে জায়গা খালি নেই ।

চাকরীর জন্য দুয়ারে দুয়ারে ঘুরে

বড়’দা জুতার তলা খুইয়েছে ।

বিদ্যুতের লাইন আনতে পারিনি বলে

দিদির বিয়ের উৎসব অন্ধকারেই সেরেছি ।

বুকের মধ্যে সুগন্ধি রুমাল রেখে বরুণা বলেছিল,

যেদিন তুমি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বেরুবে

সেদিন আমার বুকেও এ-রকম আতরের গন্ধ হবে!

 

ভালোবাসার জন্য আমি হাতের মুঠেয়ে প্রাণ নিয়েছি

ক্যাম্পাসে গোলাগুলির মধ্যেও ক্লাস করেছি

বিশ্ববিদ্যালয় তন্ন তন্ন করেও সেশনজট খুলতে পারিনি

কথা রাখেনি বরুণা, প্রাইভেট ইউনিতে এমবিএ শেষে

এখন সে মামার জোরে চাকরী করা ব্যাংক কর্মকর্তা ।

কেউ কথা রাখেনি, আটচল্লিশ বছর কাটল,

কেউ কথা রাখে না ।

সর্বশেষ সংবাদ