December 15, 2018

কাতার প্রবাসীর স্ত্রীর আর্তি-আমার স্বামীর পাসপোর্ট ফিরিয়ে দিন

কুলাউড়া প্রতিনিধি : কাতার প্রবাসী ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী ঝর্না আক্তার তার স্বামীর যব্দকৃত বাংলাদেশী পাসপোর্ট ফেরৎ পাবার জন্য কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদুতের কাছে ৯ সেপ্টেম্বর লিখিত আবেদন করেছেন। এছাড়া জব্দকৃত পাসপোর্ট ফেরৎ দিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী সন্তানকে দেশে যাওয়ার আসার সুযোগ করে দেয়ারও দাবি জানান। আবেদনের অনুলিপি তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর কাছে দিয়েছেন।
লিখিত অভিযোগে ঝর্ণা আক্তার উল্লেখ করেন, আমার স্বামী মোহাম্মদ আলী কাতারের মদীনা মোররা শাখা আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং কাতার আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক। কাতারি আইডি নং ২৭৫০৫০০০৬২৩ পাসপোর্ট নং বিসি ০৫৪৯০৫৯ দীর্ঘ ২০ বছর যাবৎ কাতারে অত্যন্ত সুনামের সাথে ব্যবসা করছেন। বর্তমানে কাতারি নাগরিকের সাথে পার্টনারে ৩টি কোম্পানী আছে। এসব কোম্পানীতে ২ শতাধিক বাংলাদেশী নাগরিক কর্মরত আছেন। কিছুদিন আগে বাংলাদেশ দুতাবাসে কতিপয় ব্যক্তি আমার স্বামীর বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের মিথ্যা অভিযোগ দেয়। অথচ অভিযোগকারীদের কাছে আমার স্বামী উল্টো টাকা পাবে। তাদের দেয়া চেকও আমার স্বামীর কাছে আছে। বিষয়টি তিনি রাষ্ট্রদুত ও সচিবকে অবহিত করেন। কিন্তু তারা আমার স্বামীর কথা বিশ্বাস না করে পুলিশের নিকট সোপর্দ করে। এভাবে ২ বার দুতাবাস কর্তৃপক্ষ তাকে ডেকে নিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। কিন্তু আদালত তাকে জামিনে মুক্তি দেয়। এদিকে দুতাবাস কর্তৃপক্ষ আমার স্বামীর বাংলাদেশী পাসপোর্টটি জব্দ করে। পাসপোর্টটি ফেরৎ না দেয়ায় ব্যবসা বাণিজ্য পরিচালনায় ব্যঘাত সৃষ্টি হচ্ছে। এতে আর্থিকভাবে আমরা ক্ষতির শিকার হচ্ছি।
প্রবাসীর স্ত্রী ঝর্ণা আক্তার জানান, আমার স্বামীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা অভিযোগগুলো প্রত্যাহার ও জব্দকৃত পাসপোর্ট ফেরৎ দুতাবাসের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

সর্বশেষ সংবাদ