December 10, 2018

কুলাউড়ায় প্রতিপক্ষের ক্ষতিসাধনে ধানক্ষেতে বিষ প্রয়োগ

Kulaura-24বিশেষ প্রতিনিধি : কুলাউড়া প্রতিপক্ষের ক্ষতিসাধনের উদ্দেশ্যে ১০ বিঘা জমির ধানক্ষেতে বিষপ্রয়োগ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কৃষি অফিসার এবং স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের কাছে লিখিত এমন অভিযোগ করেছেন উপজেলার বরমচাল ইউনিয়নের সিংগুর (খাদিমপাড়া) গ্রামের মিজানুর রশিদ সুমন। ২৪ জানুয়ারী মঙ্গলবার সকালে বাতির মিয়া, সালমান মিয়া, কালাম মিয়াকে বিবাদী করে অভিযোগপত্র জমা হয়েছে। অভিযোগপত্র থেকে জানা যায়, উপজেলা বরমচাল ইউনিয়নের খাদিমপাড়া গ্রামের বাতির মিয়া তার সঙ্গীদের নিয়ে বোরো ধান চাষে উপযোগী হালি চারায় ৮ জানুয়ারী ঘাস মারার বিষ প্রয়োগ করে। এতে ১০-১২ দিন পর চারা রোপনের এক পর্যায়ে ধানী ফসলে লালচে হতে থাকে। এক পর্যায়ে জমিনের চারা সহ পাশের হালির ঘাস পর্যন্ত পুড়ে গেছে। সন্দেহ হলে আশেপাশের লোকজন নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীদের তথ্যমতে জানা যায় বাতির মিয়া, সালমান মিয়া এবং কালাম মিয়া রাতের অন্ধকারে স্প্রে দিয়ে ঘাস মারার ওষুধ প্রয়োগ করেন।

Kulaura-24 (1)এবিষয়ে জানতে চাইলে অভিযোগকারী মিজানুর রশিদ সুমনের পাশ^বর্তী জমির মালিক কাইয়ুম মিয়া জানান, সুমনের সাথে বাতির মিয়ার দ্বন্দ্বের কারনে এ ঘটনা ঘটেছে। আমার প্রায় ৬ বিঘাও ফসল জমিনেও বাতির মিয়া রাতের অন্ধকারে ঘাস মারার ওষুধ প্রয়োগ করেছে। ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তি মিজানুর রশিদ সুমন জানান, বিগত ৬ বছর যাবৎ বাতির মিয়াকে আমরা বাগিতে চাষ করার জন্য দেই। এবছর আমি নিজে ক্ষেত করার জন্য তাকে না করে দেই। এতে সে অন্যায়ভাবে আমার এই ক্ষতি করেছে। এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার চৌধুরী মোহাম্মদ গোলাম রাব্বী জানান, উনার অভিযোগ পেয়েছি। স্থানীয় চেয়ারম্যানের সাথে আলাপ করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ